কিভাবে চিকিৎসার প্রয়োজনে হোমিওপ্যাথিক ঔষধ নির্বাচন করবেন?

Posted

কিভাবে চিকিৎসার প্রয়োজনে হোমিওপ্যাথিক ঔষধ নির্বাচন করবেন?
কিভাবে চিকিৎসার প্রয়োজনে হোমিওপ্যাথিক ঔষধ নির্বাচন করবেন?

হোমিওপ্যাথির নীতি যেমন স্থির, এর প্রয়োগ পদ্ধতিও তেমনই স্থির ও সুনির্দিষ্ট। আসুন জেনে নেই, কিভাবে চিকিৎসার প্রয়োজনে হোমিওপ্যাথিক ঔষধ নির্বাচন করবেন।

হ্যানিম্যান ঔষধের প্রয়োগ প্রণালীকে তিন ভাগে ভাগ করেছেন।

প্রথমতঃ আরোগ্য সাধনের নিমিত্ত প্রত্যেক রোগীতে কি অনুসন্ধান করতে হবে সেই বিষয় ও পদ্ধতি সম্বন্ধে জ্ঞান।

দ্বিতীয়তঃ প্রত্যেক ঔষধের আরোগ্যকারী ক্ষমতা জ্ঞান।

তৃতীয়তঃ ঔষধ প্রয়োগ বিধির সম্যক জ্ঞান।

ব্যক্তিগতভাবে রোগী পরীক্ষা করে কিভাবে লক্ষণসমূহ সংগ্রহ করতে হবে এবং রোগীর ধাতু প্রকৃতি সম্বন্ধে অবহিত হতে হবে সে বিষয়ে হ্যানিম্যান অর্গাননে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন।

প্রতিটি ঔষধের স্বতন্ত্র গুনাবলীর পরিচয় পাওয়ার জন্য ঔষধের গুনাগুণ পরীক্ষা করতে হবে। অর্গাননে সে সম্পর্কে পরিষ্কার নির্দেশ আছে। ঔষধ যেসব লক্ষণরাজি সৃষ্টি করতে পারে তার বর্ণনা আছে মেটিরিয়া মেডিকায়।

বুদ্ধিবৃত্তি ও মননশীলতার সাহায্যে সংগৃহিত লক্ষণরাজির যথাযথ বিশ্লেষণ ও মূল্যায়ণ করে হ্যানিম্যানের নির্দেশিত রীতি অণুসরণে রোগীর এক সার্বিক প্রতিচ্ছবি অংকন করতে হবে।

সুস্থদেহে ভেষজ সৃষ্ট লক্ষণসমষ্টিকেও আমরা এক একটি জীবন্ত রোগী চিত্রে রূপায়িত করতে পারি এবং শিল্পীর কলানৈপূণ্যে এই দুই চরিত্রের সর্বাঙ্গিণ মিলন ঘটিয়া রোগীকে পূর্বস্বাস্থ্যে ফিরিয়ে আনতে পারি।

ঔষধ নির্বাচনও তাই এক ধরণের ছবি আঁকা শিল্পীর তুলির টানে কতগুলি রেখা ও বিন্দু যেমন এক একটি জীবন্ত চিত্রে রূপায়িত হয় তেমনই সংগৃহিত চিহ্ন ও লক্ষণরাজি চিকিৎসকের প্রজ্ঞা ও মননশীলতায় এক প্রাণবন্ত রোগী চিত্রে পরিণত হয় যার জীবন্ত প্রতিমূর্তি আমরা মেটিরিয়া মেডিকায় পেয়ে থাকি।

বিচিত্র সব চরিত্রের সব সমাবেশ সেখানে। কোমলশীলা পালসেটিলা, ক্রুদ্ধ স্ট্র্যফিসেগ্রিয়া, দেহমনে খর্বাকৃতি ব্যারাইটা, জড়ভরত ক্যালকেরিয়া, প্রেমকাতর এসিড ফস, হতাশ অরাম প্রভৃতি বৈচিত্রময় কোন না কোন চরিত্রে আমাদের রোগীর প্রতিচ্ছবি অবশ্যই পাওয়া যাবে।

রোগীচিত্রে ঔষধের সন্ধান পাওয়া গেলে সেই ঔষধের প্রয়োগশৈলীতে চিকিৎসককে একজন দক্ষ শিল্পী হতে হবে।

লক্ষণরাজি সংগ্রহ এবং বিশ্লেষণ, ঔষধ নির্ধারণ ও মাত্রা নির্ধারণ, ঔষধের ক্রিয়া পর্যবেক্ষণ ও পরবর্তী অবস্থা গ্রহণ, পথ্য ও আনুষঙ্গিক ব্যবস্থা গ্রহণ, প্রতিটি পর্যায়ে চিকিৎসকের বিজ্ঞানীর মত সত্যের প্রতি নিষ্ঠা, যুক্তিশীলতা এবং সংস্কার মুক্ততা আর শিল্পীর মত সৃজনশীলতা, আন্তরিকতা ও সৌন্দর্যবোধ থাকা চাই।

Author
Categories

Book an appointment now
Sharing is Caring